The commissioner apologized for beating people on the road

The commissioner apologized for beating people on the road. Tangail Municipality ward councilor Aminur Rahman Amin, on Tuesday (April 7th), expressed remorse and regret over the fact that the matter went viral after stabbing the common man to maintain social distance and lockdown to prevent coronavirus infection.

He uploaded a video on Facebook apologizing. He said the coronary virus worldwide has become epidemic. The number of infections and the number of deaths is increasing daily. In Bangladesh, the prevalence of coronary disease is increasing daily. Despite repeatedly explaining to ordinary people that they were going out for a walk.

The commissioner apologized for beating people on the road

Therefore, I have shown fear to people so that they can not spread in the form of corona epidemic in the country. So that no one gets out and keeps on awareness. But I apologize and apologize for that.

Although there was no such sight of people in Anagona on Tuesday (April 8) around 12:30 pm, people were crowding into the drugstore at Newmarket at the city’s downtown. But they were not maintaining social distance. The local people were moving to the area without any need.

See details below …..

The commissioner apologized for beating people on the road

ক্ষমা চাইলেন রাস্তাঘাটে লোকজনকে পেটানো সেই কমিশনার

ক্ষমা চাইলেন রাস্তাঘাটে লোকজনকে পেটানো সেই কমিশনার করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এবং লকডাউন কার্যকর করতে মঙ্গলবার (০৭ এপ্রিল) সাধারণ মানুষকে লাঠি দিয়ে পিটানোর পর বিষয়টি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ায় ক্ষমা ও দুঃখ প্রকাশ করছেন টাঙ্গাইল পৌরসভার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আমিনুর রহমান আমিন।

ক্ষমা চেয়ে ফেসবুকে একটি ভিডিও আপলোড করেছেন তিনি।  তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস মহামাহী আকার ধারণ করেছে । প্রতিদিন সংক্রমনের সংখ্যা ও মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে । বাংলাদেশেও প্রতিদিন করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পাচ্ছে । সাধারণ মানুষকে বার বার বুঝানোর পরেও তারা অকারনে বাইরে ঘুরাফেরা করেই যাচ্ছিল ।

তাই দেশের করোনা মহামারী আকারে যাতে ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেই আবেগে মানুষকে ভয়-ভীতি দেখিয়েছি । যাতে কেউ বাইরে না বের হয় এবং সচেতনতা বজায় রেখে চলে । তবে তার জন্য আমি ক্ষমা ও দুঃখ প্রকাশ করছি ।

মঙ্গলবার (০৭ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মানুষের আনাগোনা তেমন একটা চোখে না পড়লেও শহরের নিরালার মোড়ে নিউমার্কেটে ওষুধের দোকানে মানুষ ভিড় করছিলেন ওষুধ কেনার জন্য। কিন্তু তারা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখছিলেন না। স্থানীয় জনসাধারণ কেউ প্রয়োজনে – অপ্রয়োজনে সেই এলাকায় চলাফেরা করছিল ।

সাধারণ মানুষ কিছু বুঝে উঠার আগেই লাঠি হাতে হাজির হন পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আমিনুর রহমান আমিন, টাঙ্গাইল পৌরসভার প্যানেল মেয়র সাইফুজ্জামান সোহেল, টাঙ্গাইল চেম্বর অব কমার্সের সভাপতি খান আহমেদ শুভ, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন মানিক ও শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ রৌফ।

ভিডিওতে দেখা যায় বাজার করতে ও ওষুদ কিনতে আসা মানুষকেও লাঠিপেটা করা হতে বাদ দেওয়া হয়নি । ভিডিওতে লক্ষ্য করা যায় মানুষকে ফিরে যাওয়ার এক সেকেন্ড সময়ও দেয়া হয়নি তার আগেই এলোপাথারী পেটেনো হয়েছে লাঠি দিয়ে । লক্ষ্য করা যায় কয়েকটি মোটর বাইকওয়ালাদের গাড়ি ঘুরানোর সুযোগ পর্যন্ত তারা দেননি , বরং গাড়ি ঘুরানোর ২/৪ সেকেন্ডের মধ্যেই কাউন্সিলর আমিনুর রহমান ২/৩ টি আঘাত করেছে লাঠি দিয়ে ।

সাধারণ মানুষ কিছু বুঝে উঠার আগেই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার অজুহাত দেখিয়ে লাঠি দিয়ে পেটাতে শুরু করেন সাধারণ মানুষকে। একদল আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীদের এভাবে রাস্তায় নেমে জনসাধারণকে স্বাভাবিক ভাবে বুঝিয়ে ঘরে পাঠানোর প্রত্যাশা করেছিল মানুষ । কিন্তু কেউ ভাবেনি তারা এভাবে মানুষকে এলোপাথারি আঘাত করে ভয় দেখাবে । এটা কোন আইনের আওতায় পড়েনা । কোন ইউনিয়ন পরিষদ কাউন্সিলরের এরকম ক্ষমতা সরকার দেয়নি বা কোন আইনের ধারাতেও নেই ।

এরপর সেখান থেকে চলে যান পার্ক বাজার রোডে। সেখানেও কয়েকটি ফুটপাতের ব্যবসায়ী ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কিনতে আসা কয়েকজনকে পেটানো হয়। এরপর নিরালার মোড় দিয়ে সাধারণ মানুষকে পেটাতে পেটাতে তারা চলে যান শহরের শান্তিকুঞ্জ মোড়ে। সেখানেও পেটানো হয় কয়েকজনকে। এরপর চলে যান ছয়আনি বাজারে। সেখানেও একই অবস্থা বাজার করতে আসা সাধারণ মানুষদের। তাদের উপরও চলে অমানবিকভাবে লাঠিপেটা। এসবের ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় উঠে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ।

এরপরই টনক নড়ে কাউন্সিলর আমিনুর রহমান আমিনের। পরে কাউন্সিলর আমিনুর রহমান আমিন এ ঘটনায় ক্ষমা এবং দুঃখ প্রকাশ করে নিজের ফেসবুকে একটি ভিডিও আপলোড করেন।

আরও পড়ুনঃ টাঙ্গাইলে ঘোরাফেরা করা লোকজনকে পেটালেন যুবলীগ নেতারা

“The commissioner apologized for beating people on the road”

Before the general public could understand anything, the stick appeared in ward no.12 of the municipality ward councilor Aminur Rahman Amin, Tangail municipality panel mayor Saifuzzaman Sohel, president of Tangail Chamber of Commerce Khan Ahmed Shubh, general secretary of district Jubo League and general secretary of the city, M Faruk. Rauf.

The video shows that people who came to the market and bought drugs were not excluded from being raped. The video shows the man was not even given a second to return before the unopened pateno was hit with a stick. It was noticed that some motorists did not give the bike riders the opportunity to turn the car, but within 2 1/2 seconds of turning the car, Councilor Aminur Rahman hit 2/3 with a stick.

Before the average person understands anything, he begins to beat the common people with the excuse of maintaining social distance. People expected to send a group of Awami League activists to the streets in such a way that they would explain the people in a normal way. But in no way do they intimidate people by hitting them all the way. It is not covered by any law. No union council has given such powers to the councilor or under any law.

He then left on Park Market Road. There were also some footwear traders and some who came to buy necessities. They then went to the Shantikunj Mold of the city to beat the common people through the slums. Some were beaten there too. Then go to the market. There are also ordinary people who come to market the same situation. Inhumanity is also inflicted on them. As the videos spread through social media, a wave of criticism raged against the councilor.

Immediately after tonk nara councilor Aminur Rahman Amin. Councilor Aminur Rahman Amin uploaded a video on his Facebook expressing his apology and regret.

15,14566 people infected with Corona virus worldwide and 88,188 deaths

"15,14566 people infected with Corona virus worldwide and 88,188 deaths""15,14566 people infected with Corona virus worldwide and 88,188 deaths""15,14566 people infected with Corona virus worldwide and 88,188 deaths"

 Source: Online/ Somoy TV News

Corona VirusLive UpdateBD

Click & World update of the Corona virus here

More News:

Coronavirus made in China’s lab – Scientists first infected: Britain

Kurigram sent 57 prisoners to release them from jail

Jubo League leader sticks people in Tangail (Video)

 

ফেইসবুকে আমাদের নিয়মিত আপডেট পেতে BD Jobs.com এই গ্রুপে জয়েন করোন