One arrested for strangling four people in Gazipur

ADVERTISING

One arrested for strangling four people in Gazipur. Police have arrested a man named Parvez Ahmed in connection with the murder of four members of the same family, including a child, in Sreepur, Gazipur.

Police Bureau of Investigation-PBI arrested him from Abdar area of ​​Sreepur upazila on Sunday (April 26) night.

ADVERTISING

One arrested for strangling four people in Gazipur pic

According to the police, the accused confessed to the murder after his arrest. Police also searched the house of accused Parvez Ahmed. After searching, the police found blood stained clothes from the house of accused Parvez Ahmed. According to the confession of the accused, the police recovered the mobile phone and gold ornaments hidden under the ground.

Earlier, on the night of April 22, miscreants strangled Kajal’s wife Fatema and her two daughters and a son in Abdar area of ​​Sreepur upazila in Gazipur. Four naked bodies were found from the spot. The expatriate Kajal’s wife and daughters are believed to have been first raped and then strangled. Exactly 2 days later, on Friday morning, housewife Fatema’s father-in-law Abul Hossain filed a case with the Sreepur police station accusing unknown persons.

ADVERTISING

According to the source, the police bureau of investigation-PBI has been named in the arrest of those involved in this brutal murder.

Exactly 3 days later, on Sunday night (April 26), police arrested a man named Parvez Ahmed from Abdar area of ​​Sreepur upazila.

The idea is that the police will be able to arrest the rest of the accused quickly.

One arrested for strangling four people in Gazipur

গাজীপুরের শ্রীপুরে চারজনকে গলা কেটে হত্যার ঘটনায় একজন গ্রেফতার

গাজীপুরের শ্রীপুরে শিশুসহ একই পরিবারের চারজনকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় পারভেজ আহমেদ নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ।

রোববার (২৬ এপ্রিল) রাতে শ্রীপুর উপজেলার আবদার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই।

গাজীপুরের শ্রীপুরে চারজনকে গলা কেটে হত্যার ঘটনায় একজন গ্রেফতার ছবি

পুলিশ জানাই, অভিযুক্ত আসামি গ্রেফতারের পর হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করেছে । সেই সাথে আসামি পারভেজ আহমেদের ঘর তল্লাশি করে পুলিশ । তল্লাশি করে পুলিশ অভিযুক্ত আসামি পারভেজ আহমেদের ঘর থেকে রক্তমাখা জামা-কাপড় পায় । আসামির স্বীকারুক্তি অনুযায়ী পুলিশ মাটির নিচে লুকিয়ে রাখা মোবাইল ফোন ও স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করে ।

এর আগে, গত ২২ এপ্রিল রাতে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার আবদার এলাকায় মালয়েশিয়া প্রবাসী কাজলের স্ত্রী ফাতেমা এবং তার দুই মেয়ে ও এক ছেলেকে গলাকেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা । ঘটনাস্থল থেকে মেলে বিবস্ত্র অবস্থায় গলা কাটা চারটি লাশ । প্রবাসী কাজলের স্ত্রী ও মেয়েদের প্রথমে ধর্ষন ও পরে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছিল বলে ধারনা করা হয় । এর ঠিক ২ দিন পর শুক্রবার সকালে গৃহবধূ ফাতেমার শ্বশুর আবুল হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে শ্রীপুর থানায় মামলা করেন।

সেই সূত্র ধরে, এই নৃশংস হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে নামে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই।

ঠিক ৩ দিন পর রোবিবার (২৬ এপ্রিল) রাতে শ্রীপুর উপজেলার আবদার এলাকা থেকে পারভেজ আহমেদ নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ।

ধারনা করা হচ্ছে , পুলিশ দ্রুত বাকি আসামিদেরও গ্রেফতার করতে পারবে ।

 Source: Online/ Somoy TV News

Corona VirusLive UpdateBD

Click & World update of the Corona virus here

More News:

The Prime Minister announced the closure of educational institutions till September

Pran RFL Group Job Circular 2020

Bangladesh Army Job circular 2020

Brac Job Circular 2020

Corona virus update in worldwide

ADVERTISING