কোটা সংস্কার আন্দোলন-২০১৮

ADVERTISING

ছাত্র জনতা আজ নির্যাতিত ঘুরে দাড়িয়েছে ৫২ আন্দোলন।

আমরা বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে দেখতে পাচ্ছি ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর উপাচার্য ভবনে ভাংচুরের ইস্যুতে আজ শিক্ষক সম্মেলন চলছে ।সেখানে আমাদের শ্রদ্ধীয় শিক্ষকমন্ডলী ও ভিসি সাহেব নিজে বলেছেন যে, গতকাল রাতে পুলিশের কাছে তারা অনুরুধ করে ছাত্রদের উপর যাতে কোন রকম নৃশংস্বতা না করেন।তাই জন্য কোন পুলিশি নাকি ছাত্রদের উপরে সেরকম নিরযাতন করেনি।আরো বলেছেন যে,গত রাতের ঘটনাটি একটি রাজনৈতিক ইস্যু ছিল । যারা কাল কোটা সংস্কারের আন্দোলনে নেমেছিল ও পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছিল তারা সন্ত্রাসী ।ভিসির বাসভবনে  ভাংচুরের জন্য ছাত্ররা পেয়েছে সন্ত্রাসী খেতাব/কোটার সংস্কারের আন্দোলনে সাধারণ ছাত্ররা পেয়েছে রাজনৈতিক পুর্ব পরিকল্পনার নুংরামির খেতাব।অথচ রক্তাত ছাত্রদের বেপারে ,তাদের নির্যাতনের বেপারে কোন মাথা বেথায় নেই তাদের ।এ নিয়ে কোন কথায় বলছেনা শিক্ষক ও ক্ষমতাসীন দল।এই আন্দোলন ছিল একটি তান্ডব ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড  বললেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি ।আজ ৯ এপ্রিল,২০১৮ সকাল ১১ টাই যে আলোচনার কথা বলেছলেন ওবাইদুল কাদের তা আসলে মুলত  চক্রান্ত করে ছাত্রদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে সেটিই বুঝা যাচ্ছে।কেননা এখন অবদি আমরা কোন প্রদক্ষেপ নিতে দেখছিনা বরং ছাত্ররা যাতে একত্রীত হয়ে আর আনোলনে যোগ না দিতে পারে তার জন্য প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ নিয়েছে আইনশৃংখলা বাহিনী ।

ADVERTISING

আজ মনে করিয়ে দিচ্ছে ২৫ মার্চ ,২০৭১ সাল আর মনে করিয়ে দিচ্ছে ৫২ এর ভাষা আন্দোলন । ছাত্রদের নেই কোন নিরাপত্তা ,নেই কোন ভবিষ্যত আশ্বাস ।

কোটা সংস্কার আন্দোলন-২০১৮

ঢাবি সহ সারা বাংলাদেশের আন্দোলনের কিছু চিত্র তুলে

ধরা হল ঃ

ADVERTISING